এ কেমন ক্লিনিক, ব্যবসা চলছে জনস্বাস্থ্য ক্লিনিকে? (ভিডিওসহ)

0

এ কেমন ক্লিনিক, ব্যবসা চলছে জনস্বাস্থ্য ক্লিনিকে? এ কেমন ক্লিনিক, ব্যবসা চলছে জনস্বাস্থ্য ক্লিনিকে? এ কেমন ক্লিনিক, ব্যবসা চলছে জনস্বাস্থ্য ক্লিনিকে? এ কেমন ক্লিনিক, ব্যবসা চলছে জনস্বাস্থ্য ক্লিনিকে? এ কেমন ক্লিনিক, ব্যবসা চলছে জনস্বাস্থ্য ক্লিনিকে? এ কেমন ক্লিনিক, ব্যবসা চলছে জনস্বাস্থ্য ক্লিনিকে? এ কেমন ক্লিনিক, ব্যবসা চলছে জনস্বাস্থ্য ক্লিনিকে?

এ কেমন ক্লিনিক, ব্যবসা চলছে জনস্বাস্থ্য ক্লিনিকে? এ কেমন ক্লিনিক, ব্যবসা চলছে জনস্বাস্থ্য ক্লিনিকে? এ কেমন ক্লিনিক, ব্যবসা চলছে জনস্বাস্থ্য ক্লিনিকে? এ কেমন ক্লিনিক, ব্যবসা চলছে জনস্বাস্থ্য ক্লিনিকে? এ কেমন ক্লিনিক, ব্যবসা চলছে জনস্বাস্থ্য ক্লিনিকে? এ কেমন ক্লিনিক, ব্যবসা চলছে জনস্বাস্থ্য ক্লিনিকে? এ কেমন ক্লিনিক, ব্যবসা চলছে জনস্বাস্থ্য ক্লিনিকে?

হার্টকে সুস্থ রাখতে প্রতিদিন বাদাম খান

বাদাম আপনার হার্টকে দীর্ঘদিন সতেজ রাখতে পারে৷ এমনটাই জানাচ্ছে গবেষণা৷ সেই গবেষণা থেকে জানা গিয়েছে উল্লেখযগ্য এই তথ্য। বাদাম বা শস্য দানা থেকে প্রাপ্ত প্রোটিন যা হৃদযন্ত্রের জন্য উপকারী৷

হৃদয়কে সুস্থ রাখতে এখনই খাদ্যতালিকায় যোগ করুন বাদাম৷ গবেষণা থেকে আরও একটি তথ্য জানা যাচ্ছে রেড মিটে থাকা হাই প্রোটিন হৃদরোগে আক্রান্ত ব্যাক্তিদের ক্ষেত্রে ঝুঁকির সম্ভাবনাকে বাড়ায়৷

এপিডেমিওলজি ইন্টারন্যাশনাল জার্নালে প্রকাশিত গবেষণায় দেখা গিয়েছে, যারা প্রাণিজাত প্রোটিন গ্রহণ করছেন তাদের ৬০ শতাংশ মানুষের কার্ডিওভাসকুলার রোগে (CVD) আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে৷ অন্যদিকে যেসব ব্যাক্তিরা বাদাম বা শস্যজাত অর্থাৎ উদ্ভিজ প্রোটিন গ্রহণ করেছেন তারা তুলনামূলক ভাবে এই রোগে কম আক্রান্ত হয়েছেন৷ এক্ষেত্রে আক্রান্তের পরিমান ৪০ শতাংশ৷

ক্যালিফোর্নিয়ার লোমা লিন্ডা ইউনিভার্সিটির গ্যারি ফ্রেজার বলেন, ‘খাদ্যতালিকায় থাকা ফ্যাট কার্ডিওভাসকুলার রোগের ক্ষেত্রে যেমন ঝুঁকির কারণ তেমনই প্রোটিন ঝুঁকির পরিমাণকে অনেকাংশে বাড়িয়ে তোলে৷’ তিনি বলেন, ‘এই নয়া তথ্য আমাদের সামনে এই ছবি তুলে ধরছে যে এই সমস্ত খাবারে থাকা প্রোটিন কিভাবে মানবশরীরে প্রভাব ফেলছে৷’

গবেষণাটির জন্য একটি পুরো দল ৮১,৩৩৭ জন পুরুষ এবং মহিলার শরীরে অ্যানিম্যাল প্রোটিন এবং প্ল্যান্ট প্রোটিন মধ্যে তুলনা করা হয়েছে৷ হেলদি ডায়েটের মধ্যে অবশ্যই প্রোটিন থাকাটা জরুরি৷ সেক্ষেত্রে প্রাণিজাত প্রোটিনের পরিমাণ কমিয়ে এনে যদি উদ্ভিদজ প্রোটনের ভাগ বেশী করে রাখা যায় তবে তা স্বাস্থ্যের পক্ষে ভাল৷

তাহলে বুঝতেই পারছেন শরীর সুস্থ রাখতে নিরামিষ খাওয়াটা কতটা উপকারী! এই তথ্য কিন্তু অনেক বছর আগে ভারতীয় ঋষিরা দিয়ে গিয়েছিলেন। ক্যালিফোর্নিয়ার গবেষকরা সেটা আজ জানতে পারল।

আরএম-০৪/১২/০৪ (অনলাইন ডেস্ক, তথ্যসূত্র: ইন্টারনেট)

Share.