মেয়েরা তাদের পিরিয়ড তাড়াতাড়ি শেষ করার জন্য এই পদ্ধতিগুলি ব্যবহার করতে পারেন (স্বাস্থ্য তথ্য)

0

মেয়েরা পিরিয়ড, মেজাজ সুইং, ক্ষুধা, ব্যথা, বাধা এবং ইনফাইরেশন এর সমার্থক। মহিলা শরীরবিজ্ঞান এমন হয় যে এটি মাসের কোন সময়ে অসহ্য ব্যথা সহ্য করতে হয়।

পিরিয়ডের সবচেয়ে বিরক্তিকর অংশ যে এটি প্রতি মাসে হয় এবং মাসের প্রায় এক সপ্তাহ পর্যন্ত চলে। পিএমএস এর সময়কালে খারাপ মেজাজ হয় যখন ব্যাথা শুরু হয়, তখন দুঃখবোধের কারণে এটি দুঃস্বপ্নের মত মনে হয়। সেখানে একটি ধ্রুবক কম অনুভূতি যা প্রায় সবকিছু কশাঘাত জন্ম দেয়।

মনে হয় পৃথিবী কেবল আপনাকেই শাস্তি দিচ্ছে । সুতরাং, মেয়েদের, আপনাদের প্রতি মাসের ‘পিরিয়ড’ পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে সাহায্য করার জন্য এখানে আমরা আপনার জন্য কিছু তথ্য এনেছি যা আপনারা পিরিয়ড দ্রুত শেষ করার জন্য ব্যবহার করতে পারেন।

কিন্তু, এই পরামর্শগুলির ব্যবহারের আগে আপনাকে এটি গাইনোকোলোলজিস্টের সাথে পরামর্শ করার পরামর্শ দেওয়া হল। সবাই সবকিছু ফলাফল নাও পেতে পারেন। এখানে তালিকাভুক্ত কোনও পদ্ধতিকে অন্তর্ভুক্ত করার আগে আপনাকে অবশ্যই শর্তটি জানতে হবে। শুধু অন্ধভাবে অনুসরণ করবেন না ।

১) মাসিক তরল আপনার শরীর থেকে দ্রুত ত্যাগ করতে একটি গরম জলের ব্যাগ ব্যবহার করুন।

এতে আপনার পিরিয়ড শেষ হবে শীঘ্রই। এক দিনে প্রায় ৩ থেকে ৪ বারের জন্য পাঁচ থেকে দশ মিনিটের জন্য গরম প্যাড স্থাপন একটি বৃহৎ পরিসর করতে সাহায্য করে।

২) যতটা সম্ভব জল এবং তরল পান করুন।

এটি একটি সহজ প্রবাহে সাহায্য করতে পারে এবং পিরিয়ড ছোট করতে পারে। প্রতিদিন প্রায় ৬ থেকে ৮ লিটার জল খাওয়া দরকার।

৩) যৌনসঙ্গম করা।

যৌনতা মূত্রনালী পেশী সংকোচনের কারণ হতে পারে এবং এই সংকোচনগুলি আরও দ্রুত রক্তপাত করতে সহায়তা করে, এইভাবে আপনার পিরিয়ডের সময়কালটি হ্রাস করে।

৪) কাম উত্তেজনা।

আপনি যখন প্রচণ্ড উত্তেজিত হন তখন জরায়ু পেশী সংকোচন হয়, এইভাবে আপনার শরীরের তরল তাড়াতাড়ি বেড়িয়ে গিয়ে আপনার পিরিয়ডের সময় কমিয়ে দেবে ।

৫) পেটের পেশী তে তেল ম্যাসেজ করুন।

এটি জরায়ু সংকোচনকে নিবিষ্ট করে এবং আপনার রক্ত জরায়ু থেকে বের করে দিয়ে পিরিয়ড তাড়াতাড়ি শেষ হতে সাহায্য করে । এটি ব্যথা কমাতে সহজে সাহায্য করে।

৬) আপনার খাদ্যে ভিটামিন C এর পরিমাণ আরও বাড়ান ।

ভিটামিন C শরীরকে লোহার শোষণ করতে সাহায্য করে এবং এটি রক্তবর্ণকে শক্তিশালী করে। এটি পিরিয়ডের সময়কাল হ্রাস করতে সাহায্য করে। ভিটামিন C এর কিছু ভাল উৎস হল লেবু, কমলা লেবু, গোল মরিচ, গাঢ় সবুজ শাক, কিউই, ব্রকলি, বেরি, টমেটো, মটর এবং পেঁপে।

৭) নিয়মিত কাজ পিরিয়ড দ্রুত শেষ করতে সাহায্য করে।

এখানে সাবধানতা একটি শব্দ হল যে সময়কালে ব্যায়াম করা হলে আপনি নিজেকে জলয়োজিত রাখতে পারবেন। মরিসো, এমন একটি গবেষণায় দেখা যায় যে, মহিলা ক্রীড়াবিদদের সাধারণ নারীদের তুলনায় কম সময়ের পিরিয়ড হয়ে থাকে ।

৮) ননস্টেরিয়াল অ্যান্টি-ইনফ্লাম্যাটারী ড্রাগস গ্রহণ করা।

সাবধানতা এবং পরামর্শের সাথে এটি ব্যবহার করুন। অ্যাসপিরিন, ন্যাপরোক্সেন এবং আইবুপোফেনের মত এই ওষুধগুলি গর্ভাশয় দেওয়ালের স্ফীতি কমাতে সহায়তা করে, যা পালাক্রমে ভারী মাসিক প্রবাহ এবং তার সাথে যুক্ত ব্যথা কমিয়ে দেয়। নির্দেশাবলী অনুযায়ী ডোজ নিতে হবে।

৯) ভেষজ চা খাওয়া।

এটি মস্তিষ্কে আঘাত কমাতে সহায়তা করে এবং শরীরের দ্রুত রক্তের প্রবাহকে সহজতর করে তোলে।

১০) তুলার পট্টি পরিবর্তে প্যাড ব্যবহার করুন।

রক্ত চলাচলের চেষ্টা করার সময় ট্যাম্পন রক্ত প্রবাহকে এড়িয়ে চলতে থাকে, এইটি পিরিয়ডের সময়কালটি দীর্ঘায়িত করে। স্যানিটারি প্যাড ব্যবহার করা ভাল, কারণ তারা রক্তকে সহজেই প্রবাহিত হতে দেয়।

১১) খাদ্য যা ফল এবং সবজি দ্বারা সমৃদ্ধ।

ক্যারোটিন সমৃদ্ধ খাদ্য পিরিয়ডের সময়কাল কমিয়ে দেয়। ক্যারোটিন বেশিরভাগই কমলা ফল ও সবজি যেমন গাজর, পেঁপে এবং অন্যান্য রঙিন সবজিতেও পাওয়া যায়।

১২) ম্যাগনেসিয়াম সমৃদ্ধ খাদ্য খান।

ইস্ট্রোজেন এবং প্রজেসট্রোন হরমোন সমান করা উচিৎ যদি পিরিয়ড সংক্ষিপ্ত করা হয়। শরীরের ইস্ট্রোজেন স্তরের কারন ম্যাগনেসিয়াম। এটি মাসিক রক্তপাত দ্রুত করতে সাহায্য করে । যেমন ডার্ক চকলেট, ওট, তরমুজ ম্যাগনেসিয়াম সমৃদ্ধ।

১৩)চেষ্টা করুন দারুচিনি জল পান করার ।

শক্তিশালী থাকার জন্য, দারুচিনি এটি যুগোপযোগী ঔষধি হিসাবে ব্যবহৃত হয়েছে। গরম জলের এক কাপে দারুচিনি পাউডারের তিনটি চামচ যোগ করুন এবং দারুচিনি জল প্রস্তুত করুন।

এটি জরায়ুর রক্তের বাহুগুলি বন্ধ করে দেয় যা রক্তস্রাবের প্রাদুর্ভাবকে ধীরে ধীরে বাড়িয়ে দেয় এবং এইভাবে দ্রুত পিরিয়ড শেষ হয়। এই পদ্ধতি চেষ্টা করার আগে প্রথমে একটি স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞের সাথে পরামর্শ করুন আবশ্যক ভাবে।

১৪) আপেল সিডার ভিনিগার।

এক গ্লাস জলে ভিনিগার দু চা চামচ যোগ করুন এবং আপনার পিরিয়ডের সময় এটি তিনবার পান করুন, এটি আপনাকে দ্রুত পিরিয়ডের পরিসমাপ্তি করতে সাহায্য করবে।

১৫) আদা।
আদা রক্তাক্ত পরিমাণ হ্রাসে সহায়তা করে এবং এর সাথে পিরিয়ড শেষ হয়। মধুর সঙ্গে মিলিত আদা, আপনার জন্য বিস্ময়ের কাজ করতে পারে।
মেয়েরা আপনারা উপরে উল্লিখিত উপায় ব্যবহার করে সমস্যা থেকে দ্রুত পরিত্রাণ পেতে পারেন।

Share.