বরিশালের উজিরপুরে ৮ম শ্রেণির ছাত্রীকে চোখ বেঁধে গণধর্ষণ !

0

ব‌রিশা‌লের উজিরপুরে ৮ম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে চোখ বেঁধে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনা ধামাচাপা দিতে প্রভাবশালী এক‌টি মহল প্রকাশ্যে সালিস বৈঠকের আয়োজন করলে স্থানীয় সাংবাদিক ও পু‌লি‌শের হস্তক্ষে‌পে সালিস বৈঠক পণ্ড হয়ে যায়।

পুলিশ ভিকটিমকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এ নিয়ে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

ভিকটিম ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপ‌জেলার জল্লা ইউনিয়নের কুড়লিয়া গ্রামের ভ্যান চালক প্রদীপ বাড়ৈর ৮ম শ্রেণি পড়ুয়া কন্যাকে একই গ্রামের ইউপি সদস্য সবিতা রানীর ছেলে সৈকত (১৯) ও মধু বাড়ৈর ছেলে দেবাশীষ বাড়ৈ (১৬) পূ‌র্বে থে‌কেই উত্ত্যক্ত ক‌রে আস‌ছিল। স্কুলে আসা যাওয়ার পথে ওই দুই বখাটে প্রায়ই কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল।

শনিবার (৩১ মার্চ) দুপুর আড়াইটায় ওই ছাত্রীর বাবা-মা বাড়িতে না থাকায় নির্জন ঘরে ঢুকে দুই বখাটে মিলে ছাত্রীকে চোখ বেঁধে ফে‌লে। একপর্যা‌য়ে প্রা‌ণে মে‌রে ফেলার হুমকি দিয়ে ধর্ষণ করে।

নির্যা‌তিতা ওই ছাত্রী জানায়, ‘সৈকত ও দেবাশীষ আমাকে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করত, লোক লজ্জায় এতোদিন কাউকে বলিনি। ঘটনার দিন একা পেয়ে ওরা আমাকে চোখ বেঁধে কুপিয়ে হত্যা করবে বলে হুমকি দেয়। ঘটনার সময় আমার মা বাড়িতে চ‌লে আসলে তারা পালানোর চেষ্টা করলে মা লাঠি দিয়ে ওই বখাটেদের আঘাত করে। পরে তারা আমা‌দের হুমকি দিয়ে পালিয়ে যায়।’

উজিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শিশির কুমার পাল বিডি২৪লাইভকে জানান, এই ঘটনার খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠি‌য়ে ভিকটিমকে উদ্ধার করে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে আনা হয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতা‌রের চেষ্টা চল‌ছে ব‌লেও তি‌নি জানান।

Share.